অনুগ্রহ করে অপেক্ষা করুন...

al-ihsan.net
বাংলা | English

দেশের খবর - ১৭ জানুয়ারী, ২০১৭
 
জনশক্তি রফতানী বন্ধ থাকায় বিপাকে আমিরাতে বাংলাদেশী ব্যবসায়ীরা
নিজস্ব প্রতিবেদক:

সংযুক্ত আরব আমিরাতে প্রায় ৫ বছর থেকে জনশক্তি রফতানী বন্ধ থাকায় বিপাকে সেখানকার বাংলাদেশী ব্যবসায়ীরা। তবে দেশে দালালদের খপ্পরে পড়ে অনেকে অবৈধভাবে আরব আমিরাতে যাচ্ছেন। সেখানে ভূয়া তথ্য দিয়ে কাজে যোগ দেয়ায় নষ্ট হচ্ছে বাংলাদেশের ভাবমর্যাদা। প্রায় ৫ বছর থেকে বন্ধ রয়েছে বাংলাদেশী শ্রম বাজার। কিন্তু তারপরও দালালদের প্রলোভনে পড়ে অনেকে দেশটিতে যাচ্ছেন। তারপর স্থানীয় সরকার প্রশাসন এবং বাংলাদেশ দূতাবাসকে না জানিয়েই কাজ করছেন শ্রমিক হিসেবে। যা আরব আমিরাতের আইন পরিপন্থী। বেশি টাকা রোজগার করে স্বচ্ছ জীবন-যাপনের মিথ্যে তথ্য দিয়ে আরব আমিরাতে যান নারীরাও। গৃহকর্মী হিসেবে অল্প দিনে বেশি আয় করে ফিরে আসবেন দেশে এমন আশ্বাসের ফাঁদে পড়ছেন তারা। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ধরা পড়ে অবৈধ হিসেবে মামলা খাচ্ছেন এই শ্রমিকরা। মিলছে শাস্তি। পাশাপাশি বিদেশের মাটিতে নষ্ট হচ্ছে দেশের ভাবমর্যাদা। অথচ আইন মেনে চললেই বদলাতে পারে চিত্র। সেখানকার কর্মকর্তারাও বলছেন, অনেক বছর থেকে আমাদের ভিসা বন্ধ আছে, শুধু আইন না মানাতে। তাই তারা সকল শ্রমিককে আইন মেনে চলতে অনুরোধ জানান। বাংলাদেশী শ্রম বাজার বন্ধ থাকায় অন্যান্য দেশ থেকে শ্রমিক নিয়েও আরব আমিরাতে লোকসান গুনছেন অনেক বাংলাদেশী ব্যবসায়ী। ফুজাইরা বাংলাদেশ সমিতির সহ-সভাপতি তপন সরকার বলছেন, আমরা ঠিকমতো লোক পাচ্ছি না। আমরা নাইজেরিয়া, ইন্ডিয়া, পাকিস্তানসহ বিভিন্ন দেশ থেকে শ্রমিক আনছি। কিন্তু তারা আমাদের এখানে ঠিকমতো কাজ করছে না। তাই আমাদের অনেক অসুবিধা হচ্ছে। এ অবস্থায় সংযুক্ত আরব আমিরাতের বন্ধ শ্রম বাজার চালু করতে সরকারকে জোর প্রচেষ্টা চালানোর তাগিত দিয়েছেন প্রবাসী বাংলাদেশীরা। তারা বলছেন, সরকার জোর প্রচেষ্টা চালালে হয়তো বন্ধ শ্রম বাজার চালু হবে। তাতে আমাদের প্রতিষ্ঠানগুলো উন্নত হবে। বিদেশে বাংলাদেশী শ্রমিকরা বৈধভাবে কাজ করলেই বাংলাদেশের জন্য তা কল্যাণ বয়ে আনবে এমনটাই মনে করেন আরব আমিরাতের শ্রমিকরা।







For the satisfaction of Mamduh Hazrat Murshid Qeebla Mudda Jilluhul Aali
Site designed & developed by Muhammad Shohel Iqbal